SL News জাতীয়

মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখবে অস্ট্রেলিয়া

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারকে চাপ প্রয়োগে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে যুক্ত থাকবে অস্ট্রেলিয়া। দেশটি এ সংকট সমাধানে মিয়ানমারের সঙ্গে অব্যাহত যোগাযোগ রাখবে। এছাড়াও জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের জন্য মানবিক সহযোগিতা বৃদ্ধির আশ্বাস দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

গত বৃহস্পতিবার রাজধানীতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠকে অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেরিস পেইন এ আশ্বাস দেন।

গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা বলা হয়।

ঢাকায় অনুষ্ঠিত ইন্ডিয়ান ওশান রিম অ্যাসোসিয়েশনের (আইওআরএ) ব্লু-ইকোনমি শীর্ষক মন্ত্রী পর্যায়ের দুই দিনব্যাপী সম্মেলন ২০১৯ এ যোগদানের জন্য তিন দিনের সফরে ঢাকায় আসেন। ৪ থেকে ৫ সেপ্টেম্বর এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশে আসার আগে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন পরিস্থিতি পরিদর্শনে মেরিস পেইন মিয়ানমার সফর করেন।

বৈঠকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিকদের প্রত্যাবাসনে অস্ট্রেলিয়ার সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করায় অস্ট্রেলিয়ার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন বলেন, আস্থার অভাবে রোহিঙ্গারা রাখাইন রাজ্যে ফিরে যেতে ভয় পাচ্ছে। তিনি আন্তর্জাতিক তদারকিতে রোহিঙ্গাদের দ্রুত প্রত্যাবাসনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

জবাবে পেইন বলেন, কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করে তিনি বাস্তব ও মাঠ পর্যায়ের পরিস্থিতি অনুধাবন করেছেন।

রোহিঙ্গা পরিস্থিতি ছাড়াও দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের শান্তি, স্থিতি ও সমৃদ্ধি জোরদারে একত্রে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

মোমেন বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক জোনে বিনিয়োগে অস্ট্রেলিয়ার প্রতি আহ্বান জানান।

বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে ব্যবসায়িক যোগাযোগ ও দুদেশের জনগণের মধ্যে বোঝাপাড়া ক্রমশ বাড়ছে উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশিদের অস্ট্রেলিয়া ভ্রমণের নির্দেশনা রিভিউ করার জন্য অস্ট্রেলিয়ান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতি অনুরোধ জানান।

তিনি ঢাকায় অস্ট্রেলিয়ান হাইকমিশনে ভিসা অফিস পুনরায় চালুর অনুরোধ জানান। সম্প্রতি এই অফিস দিল্লীতে স্থানান্তর করা হয়েছে। মোমেন ঢাকা বিমান বন্দরের এভিয়েশন নিরাপত্তার মান উন্নয়ন করায় এয়ার কার্গো নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য অস্ট্রেলিয়ান মন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানান।

পেইন বলেন, অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ এসব অনুরোধ বিবেচনা করবে এবং এ বিষয় বাংলাদেশকে জানাবে। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

About the author

quicknews

Add Comment

Click here to post a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

September 2019
S M T W T F S
« Aug    
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930